Home » নওয়াবেকী গৃহবধূর গলায় জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্চিত:প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নওয়াবেকী গৃহবধূর গলায় জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্চিত:প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

কর্তৃক CsCSJekovzvW

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নওয়াবেকীতে নারীর গলায় জুতার মালা পরিয়ে প্রকাশ্যে লাঞ্চিতের ঘটনার মামলায় আসামীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে হত্যাসহ খুন জখমের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগী নারী।২১ অক্টোবর দুপুর ১২ রায় সাতক্ষীরা সাংবাদিক কেন্দ্রে উক্ত সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।ভুক্তভোগী নারী শ্যামনগর উপজেলার পূর্ব বিড়ালক্ষী গ্রামের ইমদাদুল সরদারের স্ত্রী।এসময় ভুক্তভোগী নারী লিখিত বক্তব্যে বলেন তুচ্ছ গঠনায় গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে আমার ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৩) কে নওয়াবেকী বাজারের মাছের কাটায় পূর্ব বিড়ালক্ষী গ্রামের হামিজুদ্দীন সরদারের পুত্র রবিউল সরদার, আতিয়ার রহমানের পুত্র মনিরুজ্জামান সানা, তবিল উদ্দীন সরদারের পুত্র আমিনুর সরদার, কামরুল সরদার, সোহিল উদ্দীন সরদারের পুত্র মোশারফ সরদার, হামিজ উদ্দীন সরদারের পুত্র রুবেল সরদার,মৃত তমিজ উদ্দীন সরদারের পুত্র ইব্রাহীম, হান্নান সরদার এবং সোহিল উদ্দীন সরদারের পুত্র ইমরান হোসেন আটকে রেখে মারপিট করতে থাকে। বিষয়টি শুনে আমি আমার সন্তানকে রক্ষার জন্য গেলে উল্লেখিত ব্যক্তিরা আমাকে মারপিট করে আমার পরনের শাড়ী কাপড় ছিরে শ্লীলতাহানি করে। এখানেই শেষ নয় আমাকে মারপিট করে জুতার মালা পরিয়ে প্রকাশ্যে বাজার ঘুরিয়ে তার মোবাইলে ভিডিও করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়ে সামাজিকভাবে আমাকেসহ আমার পরিবারকে চরমভাবে হেয় প্রতিপন্ন করে। পরবর্তীতে স্থানীয়রা আমাকে এবং আমার পুত্রকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এঘটনায় আমি বাদী হয়ে শ্যামনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও মামলা হয়নি। পরবর্তীতে সাতক্ষীরার মানবিক পুলিশ সুপার মহোদয়ের কাছে আসলে তিনি মামলা নিতে নির্দেশ দেন। মামলা রেকর্ড হলেও এখনো পর্যন্ত আসামী আটক হয়নি। তারা আদালত থেকে জামিন নিয়ে আমাকে সহ আমার পরিবারের সদস্যদের খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। তাদের ভয়ে আমরা বাড়ি ছাড়া হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছি। বিশেষ করে আমার একমাত্র কন্যা সন্তানকে নিয়ে আমি চিন্তিত হয়ে পড়েছি। আর পুত্র সন্তানকে হত্যার হুমকি তো প্রায়ই দিচ্ছে। গত ১৮ অক্টোবর রাত ৩ টার দিকে উল্লেখিত ব্যক্তিরা আমার বসতবাড়িতে আগুন জালিয়ে দেয়। এঘটনায় আমাদের কেউ আহত না হলেও প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এসব জঘন্য অপরাধের শাস্তির হাত থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তির সহযোগিতায় অনিবন্ধিত অনলাইনে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশসহ নানা মিথ্যাচার ছড়ানোর পাশাপাশি মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির হুমকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে।সাংবাদিক বন্ধুগণ : আমি একজন মধ্য বয়সী নারী।আমাকে প্রকাশ্যে জুতার মালা পরিয়ে বাজার ঘোরানোরমত জঘন্য অপরাধ করেও পার পেয়ে যাচ্ছে ওই অপরাধীরা। আর আমি একজন অসহায় নারী সন্তানদের নিয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছি। আমি এই অপমান সইতে পারছি না। আমি উল্লেখিতের দ্রুত গ্রেফতার ও কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার সহ যথাযথ কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন


The reCAPTCHA verification period has expired. Please reload the page.